মাসিকের ব্যথায় ইয়োগা

বর্তমানে বিশ্বে দুই তৃতীয়াংশ (৭১%) তরুণ নারী পিরিয়ড বা মাসিকের ব্যথায় ছটফট করে। পিরিয়ড ব্যথা ছাড়াও এই লিস্টে আছে পিরিয়ডের সময় বিষন্নতা, মেজাজের উঠানামা ও পিঠ ব্যথা। গবেষনা বলে, যদিও পড়াশোনা, অফিস ও দৈনন্দিন কাজে এইগুলো চরম মাত্রায় সমস্যার সৃস্টি করে তাও নারীদের এই ব্যথা সারানোর থেকে এর সাথে মানিয়ে নিয়ে চলার প্রবণতা বেশি।  পিরিয়ড জনিত এই সমস্যা বিভিন্নভাবে  নারীদের প্রাত্যহিক কাজে বিঘ্ন ঘটায়। গবেষণা বলছে অধিকাংশ নারীদের জীবনে বিভিন্নভাবে এই পিরিয়ড সমস্যা নাতিবাচক প্রভাব ফেলে। 

পিরিয়ড ব্যথা পরিত্রাণের জন্য যোগব্যায়াম বা ইয়োগা নতুন কিছু নয়। সঠিক পোজ এবং নিয়মিত অনুশীলন পরীক্ষিতভাবে পিরিয়ড ব্যথা দূরকরণের জন্য কার্যকর তা প্রমাণিত। সঠিকভাবে ইয়োগা করলে পেশীগুলি স্বাচ্ছন্দ্যভাবে কাজ করে যা হরমোনের গতিবিধি ঠিক করতে সাহায্য করে। তাছাড়া পিরিয়ড ব্যথা কমিয়ে মনকে শিথিল করতে ইয়োগার কোন বিকল্প নেই।

৫ বছর ধরে কাজ করার অভিজ্ঞতায় আমরা দেখেছি পিরিয়ড ব্যথায় প্রায় প্রতিটি মেয়েই কাতর। কেউ মেডিকেশন নিচ্ছেন, কেউ-বা নিচ্ছেন ঘরে বসে নানা টোটকা।

গত মাসে আমরা ঋতু থেকে একটা অনলাইন পোল করেছিলাম। প্রশ্নটা ছিলো ‘ আপনার কোন ধরনের পিরিয়ড/ মাসিক সমস্যা আছে?’

অংশগ্রহণকারীদের উত্তর থেকে দেখা যায়ঃ ৪০.৭% বলেছেন তাদের পিঠ ব্যথা, বিষণ্ণতা, উদ্বেগ/ অস্থিরতা এবং ৫২.২% অংশগ্রহণকারী বলেছেন চরম মাসিকের ব্যথা। এ থেকেই বোঝা যায় পিরিয়ড ব্যথা আমাদের মেয়েদের জীবনে কতো সাধারণ এক ঘটনা।

সঠিক খাদ্যাভ্যাস, পরিমিত ঘুম এবং হাল্পকা ব্যায়াম বা ইয়োগা সহজেই দূর করতে পারে পিরিয়ডের এই দুর্বিসহ ব্যথা। একদিন বা দুইদিন নয়, বরং জীবনের একটি অংশ করে ফেলতে হবে এই নিয়মগুলো। তাহলেই আপনি পাবেন এক আরামদায়ক এবং সহজ মাসিক বা পিরিয়ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *